সেবাদানকারীর সেবা করবেন যেভাবেঃ পর্ব-১

how to take care of nurses

আমরা যখন মানসিকভাবে বা শারীরিকভাবে অসুস্থ হই তখন এমন একজন মানুষ আমাদের পাশে থাকেন যিনি আমাদের যত্ন নেন, সেবা বা শুশ্রূষা করেন। আবার আমাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে বা জীবন-যাপন সহজতর করতে সেবা দানকারী ব্যক্তিটির অবদান অপরিসীম। আর তাই সেবা দানকারী ব্যক্তিটির সুস্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা জরুরী। আসুন পর্যায়ক্রমিকভাবে জেনে নেই সেবা দানকারী সম্পর্কে বিস্তারিত।

একজন সেবা দানকারী ব্যক্তি যে কেউ হতে পারেন। তবে সাধারণত পরিবারের কোন এক বা একাধিক মানুষ যেমন মা অথবা বাবা অথবা ভাই বা বোন এই সেবা দান করে থাকেন। অনেকসময় বয়োজ্যেষ্ঠ নিকটাত্মীয় এই ভূমিকা পালন করে থাকেন যেমন খালা, ফুপু, মামী ইত্যাদি।

আজকে আমরা জানব কি কি কারণে সেবা দানকারী ব্যক্তির সেবা (care) প্রয়োজন।

  • সেবা দানকারী ব্যক্তি নিজেও অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন। তার সুস্থ থাকাটা আরও অনেক বেশী জরুরি।
  • একজন অসুস্থ ব্যক্তির দিকে মনোযোগ বেশী থাকার কারণে অনেক সময় আমরা সেবা দানকারী ব্যক্তিটির প্রয়োজন বা সমস্যা মেটানোর জন্য তাকে সময় দেয়ার কথা ভুলে যাই। এতে করে সামান্য যত্নের অভাবে বড় কোন সমস্যা তৈরি হতে পারে। তাই এই ব্যক্তিটিরও সেবা ও যত্নের প্রয়োজন।
  • কোন পরিবারে সেবা দানকারী ব্যক্তিটি যদি অবহেলিত হন তাহলে তার আত্ম মর্যাদাবোধ ও আত্মতুষ্টি কমে যায়। সে সামাজিকভাবে মিশতে চায় না। এতে করে পরিবারে অশান্তি দেখা দিতে পারে।
  • আমরা মনোযোগ দিলেই দেখব সেবা দানকারী ব্যক্তিটি শুধুমাত্র সেবা দিচ্ছে তা নয়। পরিবারের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজও কিন্তু তাকে করতে হচ্ছে। যদি ব্যক্তিটি মা হন তাহলে সেবা দানের পাশাপাশি তাকে ঘরের সব কাজই করতে হয়। একারণে তারও যত্নের প্রয়োজন যেন অন্যান্য কাজেও তিনি সাবলীলভাবে ভারসাম্য রাখতে পারেন। আবার যদি ব্যক্তিটি বাবা হন তাহলে তিনি তার কাজ ও সেবা প্রদান দুটিই গুরুত্ব দিয়ে করে থাকেন বিধায় তাকেও যত্নের আওতায় থাকতে হবে।
  • সেবা দানকারী ব্যক্তি যদি নিকটাত্মীয় কেউ হয়ে থাকেন তাহলে তার নিজ পরিবারের জন্যেও তার দায়িত্ব পালন করতে হতে পারে। আর তখন যদি ব্যক্তিটির মনোযোগ বা যত্নের ঘাটতি হয় সেটি তার জন্য অতিরিক্ত বোঝা হয়ে যাবে তাই অবশ্যই সেবা দানকারী ব্যক্তির যত্নের প্রয়োজন।

আমরা নিজের যত্নের কথা ঠিক যেভাবে ভাবি তেমনি সেবা দানকারী ব্যক্তিটির জন্যেও ভাবতে হবে। পরবর্তী পর্বে আমরা দেখব কিভাবে সেবা দানকারী ব্যক্তির যত্ন নিব।

এই সিরিজের অন্যান্য লেখাগুলো পড়ুনঃ