জেনে নিন ফেসওয়াস ব্যবহারে কিছু সতর্কতা

fwনিজের ত্বককে সুন্দর রাখতে আমাদের কতই না প্রচেষ্টা। কত কিছুই না করি আমাদের ত্বককে সুন্দর রাখতে, ব্যবহার করি নানা ধরনের প্রসাধনী, ফেসওয়াস। কিন্তু সব প্রসাধনীই কি আমাদের ত্বকের জন্য উপযোগী? আমরা কি কখনো চিন্তা করে দেখেছি আমরা যে ফেসওয়াস ব্যবহার করছি তা আমাদের ত্বকের উপযোগী কিনা? তা আমাদের ত্বককে সুন্দর করার বদলে উল্টো ক্ষতি করছে কিনা? আপনি হয়তো ভেবে থাকবেন সামান্য ফেসওয়াস আপনার কি বা ক্ষতি করতে পারে। কিন্তু আরেকবার ভাবুন। আমার মনে হয় এখন থেকেই আপনার এ বিষয়ে সচেতন হওয়া উচিত। খেয়াল রাখুন নিচের কয়েকটি বিষয়ে নাহলে আপনার সুন্দর ত্বক অচিরেই হারিয়ে যেতে পারে।

১) ফেসওয়াস কেনার আগে দেখুন সেটি আপনার ত্বকের উপযোগী কিনা। আপনার ত্বক কি শুষ্ক না তেলতেলে নাকি সাধারণ; সেই হিসেবে ফেসওয়াস কিনুন। ফেসওয়াসের গায়ে লেখা থাকবে ফেসওয়াসটি কোন ত্বকের জন্য উপযোগী। দরকার হলে দোকানদারকে জিজ্ঞেস করে নিন।

২) আমাদের মুখের ত্বকের পিএইচ (ph) মান হচ্ছে ৫.৫। তাই বুঝতেই পারছেন এটাই হচ্ছে আমাদের মুখের ত্বকের জন্য আদর্শ পিএইচ মান। ফেসওয়াস কেনার আগে দেখে নিবেন ফেসওয়াসের পিএইচ মান কত।

৩) পিএইচ এর নিরপেক্ষ মান হচ্ছে ৭। এর থেকে কম হলে তা হবে এসিডিক বা অম্লীয়। আর ৭ এর বেশি হলে তা হবে ক্ষারীয়। আমাদের মুখের ত্বক একটু এসিডিক। এই এসিডিক অবস্থার জন্যি আমাদের মুখের ত্বক বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়া, দূষণ, টক্সিন, জীবাণু ইত্যাদি থেকে মুক্ত থাকে। তাই ফেসওয়াস কেনার সময় খেয়াল রাখবেন এর পিএইচ লেভেল যেন ৫.৫ এর কাছাকাছি হয়।

৪) মুখে অতিরিক্ত ফেসওয়াস ব্যবহার করবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে।

৫) ভুলেও কখনো একইসাথে কয়েকটি ফেসওয়াস ইউজ করবেন না। এতে আপনার মুখের ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হবে। কারণ ফেসওয়াস হল এক ধরনের কেমিক্যাল। এক ধরনের কেমিক্যাল নিতে নিতে আপনার ত্বক অভ্যস্ত থাকবে। ওখানে যদি অন্য আরেক ধরনের কেমিক্যাল প্রয়োগ করেন তাহলে অবশ্যই এর খুবই খারাপ প্রতিক্রিয়া হবে যেটা আপনি কখনই চাইবেন না।

৬) মুখে ফেসওয়াস দেওয়ার আগে মুখে একটু পানি দিয়ে নিন। সরাসরি ফেসওয়াস প্রয়োগ করবেন না।

৭) বেশি ফেনা করার জন্য একসাথে অনেক ফেসওয়াস নেবেন না।

৮) দুই-তিন দিন পরপর ফেসওয়াস ব্যবহার করুন। এটা ত্বকের জন্য ভালো।

ফেসওয়াস ব্যবহারে একটু সতর্কতা আপনাকে এনে দিতে পারে সুন্দর ত্বক। সুস্থ-উজ্জ্বল ত্বক কে না চায়? উজ্জ্বল ত্বক পেতে আপনি এতটুকু সতর্কতা অবলম্বন করতেই পারেন।

ত্বকের পিএইচ নিয়ে আরেকদিন বিস্তারিত লিখব। আজ এ পর্যন্তই। সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। আর নিজের ত্বককে ভালো রাখুন। আমার সাথে সংযুক্ত হতে পারেন টুইটারে

পরামর্শ.কম এ স্বাস্থ্য ও রূপচর্চা বিভাগে প্রকাশিত লেখাগুলো সংশ্লিষ্ট লেখকের ব্যক্তিগত মতামত ও সাধারণ তথ্যের ভিত্তিতে লিখিত। তাই এসব লেখাকে সরাসরি চিকিৎসা বা স্বাস্থ্য অথবা রূপচর্চা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ হিসেবে গণ্য করা যাবে না। স্বাস্থ্য/ রূপচর্চা সংক্রান্ত যেকোন তথ্য কিংবা চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের/বিউটিশিয়ানের শরণাপন্ন হোন।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।

Leave a Reply