রিবন্ডিং চুলের ক্ষেত্রে কিছু বিশেষ যত্ন

10338988_634311779986970_372108980_nস্ট্রেইট চুল বর্তমানের ফ্যাশনে অনেক বেশি চলছে। নিত্য নতুন ফ্যাশানের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গিয়ে অনেকেই নিজের কোঁকড়া চুলগুলো রিবন্ডিং করে স্ট্রেইট করে ফেলেন। এর সুবিধা হলো খুব সামান্যতেই চুল গুছিয়ে রাখা যায় এবং দেখতেও বেশ ভালো লাগে।

রিবন্ডিং চুল দেখতে যতটা ভালো লাগে এর ক্ষতিকর দিকও তেমনি বেশি। চুল রিবন্ডিং করার পর চুলের বেশ ভালো যত্ন না নিলে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই চুল রিবন্ডিংএর ক্ষেত্রে বেশ কিছু বিষয় রয়েছে যা খেয়াল রাখা বেশ জরুরী।

চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক চুল রিবন্ডিং এর জরুরী বিষয়গুলো।

  • চুল রিবন্ডিং করার পর কিছু দিন বেশ সাবধানতা অবলম্বন করতে হয়। কারণ এই সময় ঠিক মতো চুল সেট না হলে রিবন্ডিংও বেশিদিন থাকবে না এবং চুলেরও বেশ বড় ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • গরম কালে অর্থাৎ এই সময় চুল রিবন্ডিং করালে আলাদা করে বিশেষ যত্ন নেয়া জরুরী। বেশ ভালো ব্যান্ডের শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে।
  • এই আবহাওয়ায়  রিবন্ডিং চুল একেবারেই খোলা রাখা যাবে না। বাইরে বের হলে অবশ্যই চুল ঢেকে বের হতে হবে। কারণ সূর্যের আলোয় রিবন্ডেড চুল খুব দ্রুত ক্ষতিগ্রস্থ হয়।
  • চুল রিবন্ডিং করার পর সাধাণত চুলের মাঝ থেকে ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা যায়। কারণ যেসকল কেমিক্যাল ব্যবহার করে চুল রিবন্ডিং করা হয় তা চুলের গোড়া নরম করে দেয় এবং চুলের ফলিকল দুর্বল করে ফেলে। তাই চুলে কোনও রকম (Hair)জেল বা সাইনার ব্যবহার করা উচিত নয়।
  • বাসায় প্রোটিন প্যাক বানিয়ে চুলে লাগাতে পারেন। ১ টি কলা, ১ টি ডিম, ৫ টেবিল চামচ টক দই ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এই প্যাকটি চুলে দিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টা। এতে চুল পুষ্টি পাবে।
  • রাতে ঘুমানোর আগে তেল গরম করে ভিটামিন ই ক্যাপ মিশিয়ে চুলে লাগাতে হবে। পরদিন সকালে শ্যাম্পু করে ফেলতে হবে। এভাবে সপ্তাহে ৩ দিন করতে পারেন।
  • মাসে ২ বার তেলের সাথে কাস্টার ওয়েল মিশিয়ে লাগাতে হবে এবং ১০ মিনিটের মধ্যে শ্যাম্পু করে ফেলতে হবে।
  • আমরা প্রায় সময় ভেজা চুল শুকানোর জন্য ড্রাইয়ার ব্যবহার করি। এতে চুল পরার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। ভেজা চুল শুকানোর জন্য মোটেও ড্রাইয়ার ব্যবহার করা যাবে না। । সবসময় খোলা বাতাসে চুল শুকাতে চেষ্টা করুন।
  • রিবন্ডিং চুল সবসময় খোলা রাখা হয় বলে চুল ময়লা বেশি হয়। তাই প্রতিদিন শ্যাম্পু করতে হবে এবং মাসে ১ বার তেলের সাথে লেবু মিশিয়ে মাথায় লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলতে হবে।

তাছাড়াও পুষ্টিকর খাবার,ফল ও শাকসবজি খেতে হবে। এবং বেশি বেশি পানি পান করতে হবে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইস বুক, টুইটার ,গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।

Leave a Reply