কিভাবে খারাপ শব্দ বলা থেকে বিরত থাকবেন

k13041814বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কারনে আমরা খারাপ শব্দ ব্যবহার করে ফেলি। এইসব শব্দ আমাদের ভাবমূর্তিকে নষ্ট করে, সাথে ডেকে আনতে পারে অনেক অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি। মুখের কথা দিয়ে যেমন একজন মানুষের মন জয় করা যায়, আবার মুখের কথাতেই ভেঙ্গে যেতে পারে বহু দিনের পুরনো সুসম্পর্কও। তাই আসুন জেনে নিই কিভাবে বেঁচে থাকতে পারি এই খারাপ অভ্যাস থেকে।

 

১) কেন খারাপ শব্দ ব্যবহার করবেন না সেটা ভাবুন

প্রথমে আপনাকে খুঁজে নিতে হবে কেন খারাপ শব্দ ব্যবহার করবেন না। বন্ধুদের আড্ডায়, ক্লাসে খারাপ শব্দ ব্যবহারকারীকে অসামাজিক, অশিক্ষিত, বিরক্তিকর ব্যক্তি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। খারাপ শব্দ ব্যবহারের কারণে সামাজিক যোগাযোগ রক্ষার সাইটগুলি থেকে হতে পারেন বিতাড়িত। তাই খারাপ শব্দ ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকলে আপনার ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে।

২) পরিস্থিতি চিহ্নিত করুন

কখন,  কোথায় বা কোন পরিস্থিতিতে আপনি খারাপ শব্দ ব্যবহার করেন তা খুঁজে বের করুন। আপনি রেগে গেলে, হতাশ হলে, নাকি বিরক্ত হলে এমন শব্দ ব্যবহার করেন তা একটি নোটবুকে লিখে ফেলুন। এগুলি আপনাকে ঐসব পরিস্থিতিতে সাবধান থাকতে সাহায্য করবে।

৩) নতুন শব্দ অনুশীলন করুন
যেসকল পরিস্থিতিতে আপনি খারাপ শব্দ ব্যবহার করেন সেগুলি লিখে ফেলুন। এবার সেই শব্দগুলির স্থলে প্রচলিত শব্দগুলি বসিয়ে ফেলুন। যেমনঃ “**** অর্থনীতি পড়তে পড়তে আমি বিরক্ত” স্থলে আপনি ‘ওহ! অর্থনীতি পড়তে পড়তে আমি বিরক্ত!’ এই ধরনের লাইন ব্যবহার করতে পারেন। লেখার পরে শুরু করুন অনুশীলন।

৪) বেছে নিন নির্দিষ্ট স্থান/ব্যক্তি
নিজেকে পরিবর্তন করতে শুরু করুন, কিন্তু ছোট ছোট উপায়ে। যেমন- আপনি ঠিক করতে পারেন নির্দিষ্ট কোন স্থান কিংবা নির্দিষ্ট কোন ব্যক্তির সামনে আপনি বাজে শব্দ ব্যবহার করবেন না। এইভাবে একটু একটু করে অনুশীলন করতে থাকুন।

৫) বাড়িয়ে নিন ক্ষেত্র, রাখুন ধৈর্য
নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা জায়গাতে সফল হলে এবার আপনার ক্ষেত্র বাড়িয়ে নিন। আরো বেশী সংখ্যক স্থানে, অধিক লোকের সামনে খারাপ শব্দ ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। আর সবসময় মনে রাখতে হবে ধৈর্য হারালে চলবে না। ধৈর্য্য ধরুন ও ধীরে ধীরে সংশোধন করে নিন নিজেকে।

আত্মসংশোধন কঠিন কাজ। তবে চেষ্টা করুন, সাফল্য অবশ্যই ধরা দেবে।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইস বুক, টুইটার , গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।

 

2 Replies to “কিভাবে খারাপ শব্দ বলা থেকে বিরত থাকবেন”

Leave a Reply