যেভাবে শুরু করবেন ফ্রিল্যান্সিং

joy

ফ্রিল্যান্সিং করতে চাচ্ছেন? কোথা থেকে শুরু করবেন বুঝতে পারছেন না ? ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চাচ্ছেন? ভালো ভাবে প্রস্তুতি নিলে আর কিছু পদক্ষেপ ধারাবাহিক ভাবে অনুসরণ করলে ফ্রিল্যান্সার হিসাবে সফল হওয়া সহজ। ফ্রিল্যান্সিং একটি ক্যারিয়ার তাই নিজেকে কোন বিষয়ে দক্ষ করেই ফ্রিল্যান্সিং শুরু করা উচিত।

ফ্রিল্যান্সিংয়ের জন্য নিজেকে তৈরি করতে নিচের পদক্ষেপ গুলো অনুসরণ করুন।

১) একাউণ্ট তৈরি করুন – elance.com অথবা oDesk.com এ একাউন্ট তৈরি করুন। অন্যান্য সাইটেও করতে পারেন। শুরুতে এই দুই সাইটের একটি দিয়ে করলে হবে।

২) ফোরাম/গ্রুপে যোগ দিন– ফেইসবুকে অনেক গুলো ফ্রিল্যান্সিং কমিউনিটি আছে সেগুলোতে যোগ দিন।   ODeksHelp  গ্রুপ তেমনি একটি গ্রুপ। যোগ দিন এই গ্রুপে।গ্রুপে থাকা ডকুমেন্ট গুলো পড়ুন। ডকুমেন্ট গুলো খুজে না পাওয়া গেলে পোস্ট দিয়ে জানতে চান। অন্যরা আপনাকে সাহায্য করবে। গ্রুপে থাকা সদস্যদের সাথে ফ্রেন্ডশীপ তৈরি করুন।

৩) মার্কেট রিসার্চ করুন– ফ্রিল্যান্স সাইটগুলোর মধ্যে ইল্যান্স কিংবা ওডেক্স ভিজিট করুন। সাইটগুলোতে বিভিন্ন কাজের ক্যাটাগরি গুলো লক্ষ্য করুন।  দেখুন কোন  ক্যাটাগরি গুলো আপনার স্কিলের সাথে মিলে যাচ্ছে। সেগুলোতে পোস্ট করা বিভিন্ন কাজ গুলো পড়ুন। আপনি করতে পারেন এমন কাজ যদি থাকে তাহলে একাউণ্ট তৈরি করে প্রোফাইল প্রস্তুত করুন (ধাপ – ৬)। ওয়েব ডিজাইন , এসইও, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন, প্রোগ্রামিং এভার গ্রীন ক্যাটাগরি। সব সময় কাজের চাহিদা যেমন থাকবে, তেমনি ভালো রেটেও পাওয়া যায়।

৪) স্কিল তৈরি করুন– আপনি পারেন এমন কাজ যদি না থেকে থাকে তাহলে আপনার করতে ভালো লাগে , ক্যারিয়ার হিসাবে নেয়া আর ভালো রেট পাওয়া যায় এমন বিষয় নির্ধারণ করুন। নিজেকে তৈরি করতে বই পড়ুন, অনলাইনে টিউটোরিয়াল/আর্টিকেল পড়ুন,প্রয়োজনে প্রশিক্ষণ গ্রহন করুন।

৫) চর্চা করুন- দক্ষতা তৈরির জন্য চেস্টা করুন। যা শিখছেন তা ব্যবহার করে নিজে নিজে অথবা দলবদ্ধ হয়ে অথবা অন্যদের সাথে থেকে চর্চা করুন।

৬) প্রোফাইল তৈরি করুন –   প্রোফাইল তৈরির সময় আপনি যে ক্যাটাগরিতে কাজ করবেন সেইক্যাটাগরিতে যাদের রেটিং ভালো, ভালো রেটে কাজ করে , দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে তাদের প্রোফাইল চেক করুন। আপনার লক্ষ্য থাকবে তাদের মতো প্রোফাইল তৈরি। শুরুতে তাদের মতো হবে না কিন্তু ধীরে ধীরে তাদের মতো হওয়াই হবে আপনার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার আপততঃ লক্ষ্য। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা গুলো দিন।

৭) পোর্টফলিও যোগ করুন– ক্লায়েন্ট আপনার আগের করা কাজ দেখতে চাইবে। নতুন হিসাবে আপনার আগে করা কাজ না থাকারই কথা। পোর্টফলিও না থাকলে কাজ পেতে বেশ সমস্যা হবে। প্রয়োজনে বিনা পারিশ্রমিকে পরিচিত জনের কাজ করে দিন। সহকারী হিসাবে সিনিয়রদের কাজ করে দিন। বিভিন্ন ফোরামে অন্য সদস্যদের সাহায্য করুন। ডিজিটাল পয়েণ্ট, ওয়ারিয়র ফোরামের মতো ফোরাম গুলোতে যোগ দিন। অন্যদের সাহায্য করে টেস্টিমোনিয়াল সংগ্রহ করুন। প্রোফাইলে সেগুলো যোগ করুন।

৮) কাজের জন্য বিড করুন-আপনার প্রোফাইল প্রস্তুত হলে কাজের জন্য বিড করতে থাকুন। সেই ক্ষেত্রে কাজের রিকোয়্যারমেন্ট ভালো ভাবে পড়ে তারপর বিড করুন।

প্রথম কাজ পেতে কিছুটা বেশি সময় লাগে। তবে ভালো প্রস্তুতি, দক্ষতা ও জ্ঞান থাকলে বেশি সময় লাগবে না। কিছু কাজ সফলতার সাথে শেষ হলে সামনে এগিয়ে যাওয়া হবে অধিকতর সহজতর।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ে অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইস বুক, টুইটার , গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।

 

3 Replies to “যেভাবে শুরু করবেন ফ্রিল্যান্সিং”

Leave a Reply