দৈনন্দিন জীবনে অর্থ সঞ্চয়ের জন্য কিছু পরামর্শ

how to save moneyবলা হয়ে থাকে যে, “অর্থই অনর্থের মূল” আবার “অর্থই বিপদের বন্ধু”. অর্থ ছাড়া জীবনের এক মুহূর্তও চলে না। আমরা অনেকেই অনেক সময় বেহিসাবে খরচ করি আবার অনেকেই অর্থ সঞ্চয় করে প্রয়োজনীয় সময়ে তা কাজে লাগাই। এই সঞ্চয় যে জীবনের কত কাজে লাগে তা আসলে ভুক্তভুগি ছাড়া বোঝার কেউ নেই। কিভাবে করবেন এই অর্থ সঞ্চয়, দেয়া হলো কিছু পরামর্শ-

  • বাজেট করুন। বাজেট আপনার সার্বিক অর্থ সংক্রান্ত পরিকল্পনার একটি অংশ। আয় ও ব্যয়ের মধ্যে সামঞ্জস্য রেখে একটি বাজেট তৈরি করুন এবং সে অনুযায়ী সামনে অগ্রসর হোন। এটা আপনাকে সঞ্চয়ী অভ্যাসে পরিণত করতে সহায়তা করবে।
  • যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ঋণ পরিশোধ করুন। কারণ ঋণ আপনার অর্থ লেনদেনে একটি বাড়তি বোঝা। এই ঋণ না থাকলে আপনি সঞ্চয়ের দিকে মনোযোগী হতে পারবেন। ক্ষুদ্র থেকে মাঝারি সঞ্চয়ও করতে পারবেন।
  • অতিরিক্ত ব্যয় থেকে বিরত থাকুন। দৈনিক, মাসিক হিসাব করে দেখুন কোন কোন খাতে আপনার অতিরিক্ত ব্যয় হচ্ছে। সেসব খাত বাতিল করুন অথবা পরিমিত ব্যয় করুন।
  • প্রতিনিয়তই আমাদের বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণে থাকতে হয় যেখানে জ্বালানী খরচ ও পরিবহণ খরচ বাড়তি থাকে। আপনি হেঁটে দূরত্ব কমিয়ে, পরিবহণ পরিবর্তন করে সংক্ষিপ্ত পথে ভ্রমণ করে এই খাত থেকে সঞ্চয় করতে পারেন।
  • বন্ধুবান্ধবদের সাথে প্রয়োজন ছাড়া হ্যাংআউট, ডাইন আউট করা থেকে বিরত থাকতে পারেন। এতে আপনার ব্যয় কম হবে এবং অর্থ সঞ্চয় করতে পারবেন।
  • আপনার সন্তান এবং আশেপাশের মানুষদের আয়-ব্যয় সম্পর্কে ভালভাবে শিখাতে পারেন। সেই সাথে কিভাবে সঞ্চয় করতে হয় সেই সম্পর্কেও তাদেরকে সাহায্য করুন। কোন খাতে কিভাবে আয় করা যায় এবং পরিমিত ব্যয় করে অর্থ সঞ্চয়ে রাখা যায়, সেই সঞ্চয় কিভাবে কাজে লাগানো যায় সেই সম্পর্কে শেখান। এতে ব্যক্তি সঞ্চয় থেকে পারিবারিক এমনকি সমষ্টিগত সঞ্চয় গড়ে উঠবে যা ব্যাপক পরিসরে সাহায্য করতে পারে।
  • মোবাইল ফোন এ অপ্রয়োজনীয় কল করা থেকে বিরত থাকুন। পরিমিত কথা বলার মাধ্যমে আপনি ব্যালেন্স নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন।

এক্সট্রা টিপস
বাসার আশেপাশে, বারান্দায় সম্ভব হলে টবে কিংবা মাটিতে গাছ লাগান আর এতে আপনার এয়ার কন্ডিশনার কেনার খরচ বাঁচবে। গাছের যত্ন নেবার পাশাপাশি আপনি ফ্রি অক্সিজেনের সাথে ফুল, ফল বা সবজীও পেতে পারেন। এতে আপনার আর্থিক সঞ্চয় হবে।

আপনার সঞ্চয় আপনার ভবিষ্যৎ। দিন শেষে আপনি যদি ক্ষুদ্র পরিমাণ অর্থও সঞ্চয় করতে পারেন সেটা আপনার জন্য বৃহৎ হয়ে ধরা দিবে সামনের দিনগুলোতে।

আরো পড়ুন
ফ্রিল্যান্সাররা তাদের ভবিষ্যত আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারেন যেভাবে

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।

Leave a Reply