যেভাবে কর্মক্ষেত্রে পারস্পরিক ভুল বোঝাবুঝি এড়িয়ে চলবেন

sit_face_awayএকটি প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন মানসিকতার কর্মীরা কাজ করেন। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই পরস্পর ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু অধিকাংশ সময়েই এই পারস্পরিক ভুল বোঝাবুঝি নষ্ট করে কর্মক্ষেত্রের পরিবেশ। কিছু সাধারণ পদক্ষেপ গ্রহণ করলেই মুক্তি পাওয়া যায় এ ধরণের সমস্যা থেকে।

১. কাজ শুরুর আগে নিশ্চিত হয়ে নিনঃ
যে কোন কাজ বা দায়িত্ব পালন করার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনাকে ঠিক কোন অংশটি সম্পন্ন করতে হবে। না বুঝলে বা সন্দেহ থাকলে প্রশ্ন করে নিশ্চিত হয়ে নিন। আবার আপনি যদি নিজের অধীনস্থ কর্মচারীকে কোন কাজের নির্দেশ দেন, তবে তাকে কাজটি সম্পর্কে পূর্ণ ধারণা দিন। এতে করে প্রথমবারেই কাজ সফলভাবে সম্পন্ন হবে এবং ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হবে না।

২. সম্মান করুন সবাইকেঃ
আপনার ঊর্ধ্বতন বা অধস্তন সবাইকেই সম্মানের দৃষ্টিতে দেখুন। তাদের সাথে কথা বলার সময় গলার স্বর এবং শারীরিক অঙ্গভঙ্গির প্রতিও রাখুন সতর্ক দৃষ্টি। বাসা বা পথে কোন সমস্যা হলে সেই রাগ সহকর্মী বা অধস্তন কর্মচারীর সাথে দেখাবেন না।

৩. সকলের পরামর্শ গ্রহণ করার মানসিকতা তৈরি করুনঃ
আপনার সহকর্মী বা অধস্তন কারো উপদেশ বা মতামত গ্রহণ করার মানসিকতা তৈরি করুন। আপনি তাদের চেয়ে উচ্চ পদে আছেন, তাই তাদের পরামর্শ গ্রহণ আপনার সম্মান হানী করবে এধরণের চিন্তা না করাই শ্রেয়। এমন যদি হয়, তাদের মতামত বা পরামর্শ আপনার কাজের উপকারের চেয়ে ক্ষতি বেশি করবে, সেক্ষেত্রেও তাদের কথা মন দিয়ে শুনুন এবং শেষে তাদের বুঝিয়ে বলুন।

৪. সহকর্মীদের মানসিকতা বোঝার চেষ্টা করুনঃ
যেহেতু প্রত্যেক মানুষই একে অপরের চেয়ে আলাদা, তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই তাদের মানসিকতাও আলাদা হবে। কোন সহকর্মী সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে তার পূর্বের ব্যবহার এবং কাজ যাচাই করুন। একই ভাবে নিজের মানসিকতা সম্পর্কেও সহকর্মীদের স্বচ্ছ ধারণা দিন।

৫. আলোচনা অস্বস্তিকর পর্যায়ে চলে গেলে মাঝপথে থেমে যাবেন নাঃ
অনেক ক্ষেত্রে মতের অমিল হলে দেখা যায় বিষয়টির সমাধান না করে মাঝপথেই থামিয়ে দেয়া হয়েছে। কর্মক্ষেত্রে এধরণের কাজ বিপজ্জনক, কারণ একই প্রতিষ্ঠানে সবাইকে দীর্ঘদিন কাজ করতে হবে। তাই কোন ব্যাপারে যদি মতের অমিল দেখা দেয় তা সমাধানের চেষ্টা করুন। শান্তভাবে এবং যুক্তি সহকারে কথা বলুন। যদি দেখেন আপনার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল সেক্ষেত্রে তা মেনে নিন।

কর্মক্ষেত্র সংক্রান্ত পরামর্শ.কম এ প্রকাশিত আরো লেখা পড়ুন
কর্মক্ষেত্রের প্রথম দিনগুলোতে যা করবেন

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে।

Leave a Reply