সাইবার জগতে নিরাপদ থাকতে মেয়েদের জন্য কিছু পরামর্শ

319145-cyber-bullyingইন্টারনেট একটি চমৎকার সম্পদ। সব জিনিসের যেমন ভালো দিকের সাথে সাথে একটা খারাপ দিক থাকে ঠিক তেমনি এই চমৎকার সম্পদের একটি ভয়াবহ দিকও রয়েছে। বর্তমান সময়ে সাইবার অপরাধ ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে আর এই অপরাধের অন্যতম শিকার হচ্ছেন নারীরা। একটু সচেতন থাকলেই আমরা এই অপরাধের থাবা থেকে দূরে থাকতে পারি।

আসুন জেনে নেয়া যাক সাইবার জগতে মেয়েদের নিরাপদ থাকার জন্য ছোটখাটো কিছু বিষয়ে পরামর্শ।

  • সতর্ক থাকুন আর অপরিচিত কাউকে আপনার নিজের নাম,পরিচয়,মুঠোফোন নাম্বার এমনকি নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সাইটের পাসওয়ার্ড দেয়া থেকে বিরত থাকুন।
  • সাইবার দুনিয়ার অপরিচিত কারো সাথে সরাসরি সাক্ষাৎ আপনার জন্য বিপদজনক হতে পারে। তাই এ ধরনের সাক্ষাতের ক্ষেত্রে আপনি কখনই একা যাবেন না অথবা আপনার এই সাক্ষাতের ব্যাপারটা পরিবারকে জানিয়ে তারপর করতে পারেন।
  • অপরিচিত কোন মানুষের কাছ থেকে কোন ফাইল অথবা ইমেইল রিসিভ করা থেকে বিরত থাকুন কেননা এতে কদর্য বার্তা বা ভাইরাস থাকতে পারে যা আপনার মানসিক অস্বস্তি বা বিপদের কারণ হতে পারে।
  • হয়ত আপনি এমন কারো সাথে মেসেজিং করছেন, যে মিথ্যে বলছে অথবা ভুল পরিচয় দিচ্ছে নিজের সম্পর্কে। সেক্ষেত্রে আপনার মনে কোন রকম অস্বস্তি অনুভূত হলেই তার সাথে কথোপকথন সেখানেই বন্ধ করে দিন।
  • এমন অনেক গল্প আছে যেখানে অনলাইন চ্যাটিং পর মুখোমুখি সাক্ষাৎ হওয়ার পর পুনরায় তারা একে অপরের সাথে সাক্ষাৎ করতে ইচ্ছুক নাও হতে পারে। তাই নিজে সতর্ক থাকুন যাতে এমন অবস্থার সৃষ্টি না হয় যে পরে কেউ আপনাকে আপনাদের সাক্ষাতের সূত্র ধরে উত্যক্ত করার সুযোগ পায়।
  • অনলাইন মেসেজিং এর সময় আপনার হাতে সুযোগ থাকে কার সাথে আপনি প্রাইভেটলি কথা বলতে চান। সেক্ষেত্রে কথা বলার সঙ্গী সীমিত রাখতে চেষ্টা করুন। এতে করে অহেতুক ঝামেলা এড়িয়ে চলতে পারবেন।
  • প্রত্যেকেই ভুল করে তাই যখনি বুঝতে পারবেন আপনার মাধ্যমে কোন ভুল হয়ে গেছে সাথে সাথে সেটা পরিবার বা আপনার বিশ্বস্ত কারো সাথে আলোচনা করুন। এতে ভোগান্তি কম হবে।
  • ভার্চুয়াল জগতে অপরিচিত কারো সাথে আপনার এমন কোন ছবি,ভিডিও বা অভিজ্ঞতা শেয়ার করা থেকে বিরত থাকুন যা ভবিষ্যতে আপনার সমূহ বিপদের কারন হয়ে দাঁড়ায়।

কিছু মানুষের অশুভ প্রয়াসের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন অনেকে। আসুন সাইবার জগতের খারাপ দিকটা পরিহার করে আমরা এর ভালো দিকটা গ্রহন করার চেষ্টা করি। নিজে সচেতন থাকি আর অন্যদেরও এই ব্যাপারে সচেতন করে তুলি।

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। পরামর্শ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইস বুক, টুইটার ,গুগল প্লাসে অথবা নিবন্ধন করুন ইমেইলে

Leave a Reply